রাঙ্গামাটির বাঘাইছড়িতে দুই গ্রুপের গুলাগুলিতে নিহত-২ জন

রাঙ্গামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলায় দুই গ্রুপের গুলাগুলিতে নিহত হয়েছে দুইজন। পার্বত্য চট্টগ্রামের আঞ্চলিক দুই রাজনৈতিক দল ইউপিডিএফ এবং জেএসএসের মধ্যে সংঘর্ষ চলে নিয়মিত।

উপজেলা বাঘাইছড়ি রূপকারী ইউনিয়ন এলাকায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের গুলাগুলি হয়। আজ সকাল সাড়ে ১১টায় পাকুইজ্জাছড়ি এলাকায় এই ভয়াবহ বন্দুক যুদ্ধের ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন, জেএসএস (সন্তু) লারমা দলের কমান্ডার তুজিম চাকমা (৩৫) ও ইউপিডিএফ (গণতান্ত্রিক) দলের বাঘাইছড়ির পরিচালক জানং চাকমা (৩০)। এছাড়াও চার কিলো প্রশিক্ষণ টিলা এলাকার বাসিন্দা মনির হোসেন (২৫) নামে একজন পায়ে গুলি বৃদ্ধ হয়ে আহত হয়েছেন। আহত মনিরকে উদ্ধার করে বাঘাইছড়ি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।এ সময় ঘটনাস্থল থেকে একটি একে ৪৭ উদ্ধার করা হয়েছে।

বাঘাইছড়ি উপজেলার রূপকারী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শ্যামল চাকমা জানান, বাঘাইছড়ি উপজেলার রূপকারী ইউনিয়নের দুই কিলো নামক স্থানে আঞ্চলিক রাজনৈতিক দল ইউপিডিএফ (গণতান্ত্রিক) ও সন্তু লারমা নেতৃত্বাধীন পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির মধ্যে গোলাগুলি শুরু হয়।
ঘণ্টাব্যাপী এই গোলাগুলিতে ইউপিডিএফ (গণতান্ত্রিক) উপজেলা সমন্বয়ক জেনন চাকমা ও সন্তু লারমা নেতৃত্বাধীন জনসংহতি সমিতির এক কর্মী নিহত হন। তবে তাৎক্ষণিকভাবে তার নাম জানা যায়নি। এই ঘটনায় এলাকায় থমথম ভাব বিরাজ করছে।

বাঘাইছড়ি থানার ওসি আনোয়ার হোসেন খান বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ঘটনার পরপর মারিশ্যা জোনের বিজিবি ও পুলিশ সদস্যরা ঘটনাস্থলটি ঘিরে রেখেছে। এলাকায় প্রচুর আতঙ্ক বিরাজ করছে। এখনো থেমে থেমে গুলির শব্দ হচ্ছে।।

Related posts

Leave a Comment